সিলেটে ১৪ ট্রাক চিনিকাণ্ডে মামলা, চোরাকারবারী ‘অজানা’

প্রকাশিত: ৯:৩৩ অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০২৪

সিলেটে ১৪ ট্রাক চিনিকাণ্ডে মামলা, চোরাকারবারী ‘অজানা’

সিলেটে ১৪ ট্রাক ভারতীয় চিনি আটকের ঘটনায় মহানগর পুলিশের জালালাবাদ থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়েছে। ঘটনার দু’দিন পেরিয়ে গেলেও শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পুলিশ বলছে চোরাকারবারীদের এখনো সনাক্ত করা যায়নি।

অভিযানকালে আটক ট্রাক, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল চালক এবং নেপথ্যে থাকা চোরাকারবারীদের সনাক্ত করতে তদন্ত চলছে। অর্থাৎ দুইদিনেও ভারতীয় চিনিকাণ্ডের সাথে জড়িতরা অজানা ও অধরা রয়ে গেছেন।

সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার আজবাহার আলী শেখ জানান, ভারতীয় চিনির চালান আটকের ঘটনায় জালালাবাদ থানার এসআই মো. সালাহ উদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা করেছেন। এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। ঘটনার সাথে জড়িতরাও সনাক্ত হয়নি। তবে পুলিশ তদন্ত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। শিগগিরই জড়িতরা গ্রেফতার হবেন।
প্রসঙ্গত, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে জালালাবাদ থানাধীন উমাইরগাঁও এলাকায় একটি সড়কে সারিবদ্ধভাবে রাখা ভারতীয় চোরাই চিনি বোঝাই ১৪টি ট্রাক আটক করা হয়। এরপর থেকে এর সাথে জড়িত কারা এ নিয়ে সিলেটজুড়ে চলছে নানা আলোচনা। চোরাকারবারী ও তাদের সহযোগী হিসেবে যুবলীগের কয়েকজন নেতা, সাবেক এক জনপ্রতিনিধির আত্মীয় ও জাফলংয়ের এক পাথরখেকোর নাম আলোচিত হচ্ছে।

চোরাকারবারের সাথে কোনো রাজনীতিবিদের সংশ্লিষ্টতা থাকার তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে উপ কমিশনার আজবাহার আলী শেখ বলেন, ‘কয়েকটা দিন সময় দেন। সব পরিষ্কার হয়ে যাবে।’

পুলিশের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আটক ১৪টি ট্রাকে ২ হাজার ১১৪ বস্তা ভারতীয় চিনি পাওয়া গেছে। প্রতি বস্তায় ৫০ কেজি করে চিনি রয়েছে। জব্দকৃত চিনির বাজার মূল্য ১ কোটি ৬৭ লাখ ১২ হাজার টাকা।

আর্কাইভ

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930